Daily Frontier News
Daily Frontier News

সিলেট-২ আসনের নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিলেন নৌকার প্রার্থী শফিক চৌধূরী,ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মুহিবুর রহমান

 

কে এম রায়হান ::-

সিলেট-২ আসনের নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিলেন নৌকার প্রার্থী শফিক চৌধূরী,ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মুহিবুর রহমান।আসন্ন দ্বাদশ নির্বাচনে সিলেট-২ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে অংশ গ্রহন করবেন সাবেক সংসদ সদস্য সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধূরী। অপরদিকে এমপি হওয়ার নেশা কাটছেনা মুহিবুর রহমানের। চারবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে হেরে যাওয়ার পর পঞ্চমবারের মতো নির্বাচনে অংশ গ্রহন করছেন। মুহিবুর রহমান প্রথমত ছিলেন আ’লীগ ঘরানার মানুষ তাই ১৯৮৫ সালে নির্বাচিত হয়েছিলেন বিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে।এরপর ১৯৯১ সালের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য প্রার্থী আবার ২০০১ সালে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে সংসদ সদস্য প্রার্থী হয়ে ফেল করেন। ফীরে আসেন আওয়ামীলীগে ২০০৩ সালে যোগদান করেন।এরপর আশাবাদি ছিলেন উক্ত আসনে তিনি নৌকা প্রতীক পেয়ে নির্বাচন করবেন।কিন্তু ২০০৮ সালের সিলেট-২ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন শফিকুর রহমান চৌধূরী।পরবর্তিতে তিনি ২০০৯ সালে ফীরে যান উপজেলা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী পংকি খানকে হারিয়ে জ্বয়লাভ করেন।পরবর্তিতে শফিকুর রহমান চৌধূরীর সাথে গ্রুপিং দ্বন্দেও জড়িয়ে পড়েন তিনি।২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে ইয়াহ্ ইয়া চৌধূরী এহিয়ার কাছে হেরে যান মুহিবুর রহমান।২০১৮ সালের নির্বাচনের প্র্রথম পর্যায়ে বর্তমান সিলেট সিটি মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধূরীর পক্ষে প্রচার প্রচারনা করেন। তিনি এ আসনে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করতে না পারলে মুহিবুর রহমান প্রার্থী হলে হেরে যান মোকাব্বির খানের কাছে।
২০২২ সালে বিশ্বনাথ পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্টিত হলে নৌকার প্রার্থীকে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন মুহিবুর রহমান।মেয়রের দায়িত্বে থেকেও আসন্ন দ্বাদশ নির্বাচনে পঞ্চম বারের মতো এমপি হওয়ার প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।রাজনীতির শুরু আওয়ামীলীগে পরে জাতীয় পার্টি আবার আওয়ামীলীগে কোথাও এমপি হওয়ার স্বপন পূরন হয়নি। মতের মিল না হলেই হয়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থী । দুইবার উপজেলা চেয়ারম্যান ,গেলবার মেয়র নির্বাচিত হলেও এবার কতটা সফল হবেন এ নিয়েও রয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।অপরদিকে সাবেক সংসদ সদস্য সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধূরী ২০০৮ সালে নির্বাচিত হওয়ার পর দুই মেয়াদে দল থেকে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করতে না পারলেও ছিলেন নিরব। ১০ বছর পর এ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে শফিকুর রহমান চৌধূরী ফের নির্বাচনে অংশ গ্রহন করায় উচ্ছসিত রয়েছেন দলের নেতা কর্মীরা।
দ্বাদশ নির্বাচনে অংশ গ্রহন নিয়ে ৩০ নভেম্বর ওসমানীনগরে সাংবাদীকদের সাথে এক মত বিনিময় সভা করেন মুহিবুর রহমান । সভায় নির্বাচনে অংশ গ্রহনের ঘোষনা দেয়ার পাশা পাশি তিনি বলেন , বিগত জাতীয় নির্বাচনগুলোতে তিনি প্রতারিত হয়েছেন।কিন্তু এবারের নির্বাচন ভিন্ন। ওসমানীনগর এবং বিশ্বনাথের মানুষের সমর্থন নিয়েই তিনি নির্বাচনে অংশ করছেন।জেনেছেন এবারের নির্বাচন অবাধ এবং সুষ্টভাবে অনুষ্টিত হবে। সঠিক ভাবে নির্বাচন হলে তিনিই সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবেন এমনটাও আশাবাদি তিনি। নৌকা প্রতীক পাওয়ার পর এলাকায় শফিকুর রহমান চৌধূরীকে নিয়ে অনুষ্টিত হয়েছে আনন্দ মিছিল। গণ মাধ্যেম ,সভা সমাবেশে সাবেক এ সাংসদ বলছেন শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে তাকে মনোনিত করায় তিনি প্রধান মন্ত্রীকে নৌকা উপহার দিতে পেরেছেন। এবারও তার ব্যাতিক্রম হবেনা।কোন চক্রান্ত কিংবা অপকৌশল নৌকার বিজয় ঠেকাতে পারবে না।

Daily Frontier News