Daily Frontier News
Daily Frontier News

নরসিংদী জেলা ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটি নিয়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া গাড়ি ভাঙচুর গোলাগুলি আহত ১০ সন্দেহের তীর মনজুর এলাহীর দিকে ।।

 

 

নরসিংদী জেলা ক্রাইম রিপোর্টাঃ-

 

নরসিংদী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনের গাড়ি বহরে হামলার অভিযোগ উঠেছে পদবঞ্চিত ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। তবে পদবঞ্চিত ছাত্রদলের নেতারা দাবি করেন, খায়রুল কবির খোকন তার লাইসেন্সকৃত পিস্তল বের করে তাদের ওপর এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে। এসময় তারাও ইট-পাটকেল ছোড়েন। শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নরসিংদীর শিবপুর থানার ইটাখলা মোড়ে ওই ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত ছাত্রদলের নেতারা জানিয়েছে, খায়রুল কবির খোকন রায়পুরা উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট একে নেছার উদ্দিনের জানাজা শেষে নরসিংদীতে ফেরার পথে ইটাখোলাস্থ পৌঁছলে প্রায় শতাধিক ছাত্রদলের পদবঞ্চিত কর্মী-সমর্থকরা তার গাড়ির গতিরোধ করে। এসময় নেতাকর্মীরা ছাত্রদলের কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকে। এক পর্যায়ে কয়েকজন ছাত্র খোকনের গাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে খোকন ও তার সহযোগীরা আত্মরক্ষার্থে ফাঁকা গুলি ছুড়ে। খোকনের পক্ষের সমর্থকদের সঙ্গে পদবঞ্চিত ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এতে ১০ আহত হয়। আহতরা হলেন- পদবঞ্চিত ছাত্রদল নেতা শুভ, সোহাগ, মাইনুল, ফাহিম, মাহিম সহ ১০ জন। গতকাল সন্ধ্যায় আহত ছাত্রদল নেতারা নরসিংদী প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে করেন। এসময় ছাত্রদল নেতারা জানান, খায়রুল কবির খোকন তাদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। তার নির্দেশে তার বাহিনীর লোকজন আমাদের ওপর হামলা চালায়। জানা গেছে, কিছুদিন আগে ছাত্রদলের জেলা কমিটি ঘোষণা দেয়া হয়। এতে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ঘোষিত কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করে এবং খায়রুল কবির খোকনের বাসভবনে অগ্নিসংযোগ করে। শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফিরোজ তালুকদার জানান, আহত ফাহিম ও মাহিম হামলার ঘটনায় খায়রুল কবির খোকনসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে শিবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে। এ ঘটনায় একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। নরসিংদী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও সাবেক এমপি খায়রুল কবির খোকনের সঙ্গে মুঠোফোনে এ প্রতিনিধি যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতা মাইন উদ্দিনের নেতৃত্বে আমার গাড়ি বহরে হামলা করে। ওই সময় তারা নির্বিচারে গাড়ি ভাঙচুর করে। বাস্তবতা হলো ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণার সময় আমি জেলে ছিলাম। কারো ইন্ধনে এসব হচ্ছে ছাত্রদলের । নবগঠিত ছাত্রদলের কমিটির নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২ নেতা এবং বিএনপির একাধিক নেতা জানান নরসিংদী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব মনজুর এলাহীর ইন্বনে ছাএদলে বিশৃঙ্খলা হচ্ছে তিনি চাচ্ছেন তার অনু সারিদের দিয়ে কমিটি গঠন করতে । এবং জেলা বিএনপির কার্যালয় সরিয়ে তার সুবিধা জনক স্থানে নিয়ে যেতে কৃষক দল সহ একাধিক সংগঠন তার অনুসারীদেরকে দিয়ে গঠন করেছে । এই ঘটনার পর কেন্দ্রীয় ছাত্রদল তিন ছাত্র নেতাকে বহিষ্কার করে চিঠি দেন । তারা হলেন মাইনুদ্দিন, সাদেক, অভি, ছাত্রদলের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাদিকুর রহমান জানান খায়রুল কবির খোকনের বাসভবনে নবগঠিত কমিটির লোকেরা আগুন লাগিয়ে আমাদের নামে মিথ্যা তকমা দিয়েছে আমরা চাই প্রকৃত ছাত্র নেতাদেরকে দিয়ে কমিটি গঠন করার জন্য। বর্তমানে যে কমিটি হয়েছে এখানে অনেকেই ছাত্র না । এই বিষয়ে নরসিংদী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব মঞ্জুর এলাহীর বক্তব্য নিতে তার অফিসে ফ্রন্টটিয়ার নরসিংদীর প্রতিনিধি একাধিকবার গেলেও তাকে পাওয়া যায়নি ।

 

Daily Frontier News