Daily Frontier News
Daily Frontier News

কুমিরায় ঢাকা ইডেন কলেজ ছাত্রীর স্বামীর অধিকার পেতে ২ দিন ধরে অনশন করছে

 

শাহিন বিশ্বাস সাতক্ষীরা প্রতিনিধি।

তালার পাটকেলঘাটা কুমিরা গ্রামে বিয়ের নামে প্রতারনা স্বামীর অধিকার ফিরে পাওয়ার দাবিতে (২দিন) ধরে ঢাকা ইডেন কলেজের এক ছাত্রী অনশন করছে।
শুক্রবার ২১ এপ্রিল বাগেরহাট থেকে এসে ঐ দিন বিকাল থেকে ইডেন কলেজের ওই ছাত্রী স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে পাটকেলঘাটার কুমিরা গ্রামে সমেশ দে মাস্টারের বাড়িতে অনশন করে চলেছে।
বিয়ের নামে প্রতারিত হওয়া ওই ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে।
বাগেরহাট জেলার ফকির হাট থানার প্রশিত মালাকার এর মেয়ে ঢাকা ইডেন কলেজে তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ঐশী মালাকার ও ঢাকা বুয়েট কলেজের শিক্ষার্থী পাটকেলঘাটা কুমিরা গ্রামের সমেশ দে মাস্টারের ছেলে সুব্রত দে. ওই ছাত্রী কে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করে।এ ঘটনা দীর্ঘ ৫ মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও স্ত্রী হিসেবে মেনে না নেওয়ায় ওই ছাত্রী স্বামীর কাছে স্ত্রীর অধিকার চাইতে থাকে। এ ঘটনায় ঢাকা বুয়েট কলেজের ওই ছাত্র ইডেন কলেজের ওই ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে।ইডেন কলেজের সামনে কোন এক কক্ষে রাত জাপনের সময় ছাত্রী ঐশীর গলা টিপে হত্যার চেষ্টা চালাই।এ ঘটনায় ওই ছাত্রী গুরুতর আহত হয়ে পরিবারের তত্ত্বাবধানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কয়েক সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকেন।তার কয়েক মাস আগে কুমিরা গ্রামের সমেশ দে মাস্টারের ছেলে সুব্রত দে.ওই কলেজ ছাত্রীর এ্যবার্ষণ করে।পৃথিবীর মায়া দেখার আগেই একটি নবজাতক কে হত্যা করে বলে অভিযোগ উঠেছে। এদিকে শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে সরজমিনে গিয়ে। দেখা গেছে ওই কলেজ ছাত্রীকে বাড়ির মেন গেটে তালা মেরে আটকে রাখা হয়েছে। সাংবাদিকরা বাড়ির ভিতরে ঢোকার অনুমতি চাইলে অনেক বাগ বিতান্ডার পরে সাংবাদিকদের বাড়ির মালিক প্রবেশ করার অনুমতি দেয়। ওই ছাত্রী সাংবাদিকদের দেখে চিৎকার করে বলেন আমাকে বাঁচান.ঘরের গেট খুলে আমাকে বের করুন। ওই ছাত্রী আরো বলে সুব্রত আমাকে ছয় মাস আগে ঢাকা থেকে বিয়ে করেছে কিন্তু সে আমার স্ত্রীর অধিকার দিতে চাইনা। আমি (২দিন ) হল
সুব্রত দের বাড়িতে এসেছি তখন থেকে সে বাড়ি থেকে লাপাত্তা হয়ে গিয়েছে। ছেলেকে বাড়ি ফিরিয়ে না এনে।আমাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করছে তারা। কুমিরা বাজারের ডেকোরেটর ব্যবসায়ী মহাদেব দে সাংবাদিকদের বিভিন্ন কৌশলে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন।সাংবাদিকরা তার কথাই সাড়া না দিলে তিনি বলেন। আপনারা নিউজ করেন নিউজে কি হয় সেটা আমি দেখব। পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাঞ্চন কুমার রায় জানান।বিষয়টি আমার জানা নেয় কেউ যদি আমাদের কাছে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করে আমরা তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করব বলে জানান তিনি।

Daily Frontier News