Daily Frontier News
Daily Frontier News

বুড়িচংয়ে সিএনজি স্ট্যান্ডের চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে চালককে হত্যা!

 

বুড়িচং ( কুমিল্ল) প্রতিনিধি।।

 

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার বাজারে সিএনজি স্ট্যান্ডের জিবির ( চাঁদা) আদায়ের টাকা নিয়ে আবুল কাসেম (৩৭) নামের এক সিএনজি চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিয়োগ পাওয়া গেছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেন বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি ইসমাইল হোসেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,(২৫ মার্চ ২০২৩) শনিবার সকালে নিমসার স্থানীয় বাজারের সিএনজি স্ট্যান্ডের জিবি(চাঁদা) আদায়কে কেন্দ্র করে সিএনজি চালক আবুল কালামকে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে চাঁদা আদায়কারী মিজান, বাকির সায়েদুল সহ ৫-৭ জন সংঘবদ্ধ একটি দল। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে।বিকেলে আহত বড় ভাই আবুল কালমকে হাসপাতাল থেকে দেখে ছোট ভাই আবুল কাসেম বাড়ি ফেরার পথে সংঘবদ্ধ ওই জিবির চাঁদা উত্তোলন কারী সন্ত্রাসীরা তার পথ রোধ করে পিটিয়ে হত্যা করে।এঘটনায় নিমসার – কংশনগর বাজার সড়কের শিকার পুর এলাকার শত শত নারী পুরুষ হত্যা কান্ডের বিচার ও জিবির চাঁদা বন্ধের দাবীতে লাশ নিয়ে দুই ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাহেব আলী, পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ মোঃ জাবেদুল ইসলাম এবং ইউপি সদস্যদের আশ্বাসে স্থানীয় লোকজন অবরোধ তুলে নেন।
নিহতের সিএনজি চালক উপজেলার বারিকোডা গ্রামের মৃত আরব আলীর ছেলে।সিএনজি চালক আহত আবুল কালাম বলেন সকাল সাড়ে ৭ টায় তিনি নিমসার বাজারে সিএনজি নিয়ে আসেন। এসময় নিমসার বাজারে জিবির ( চাঁদা) টাকা কে কেন্দ্র করে সায়েদুল, মিজান, বাকির সহ ৫-৭ জন সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী পূর্ববিরোধের জেরে তারা আমার উপর হামলা চালিয়ে মারাত্মকভাবে ভাবে আহত করে। স্থানীয় লোকজন আমাকে উদ্ধার করে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। এদিকে আবুল কালাম এর ছেলে সিএনজি চালক মোঃ আল আমিন জানান তার পিতাকে রক্তাক্ত জখম করে দুপুরের দিকে উল্টো তাদের উপর মিথ্যা অভিযোগ এনে দেবপুর ফাঁড়ি থেকে পুলিশ নিয়ে বারিকোডা বাড়িতে যায়। বাড়িতে কাউকে না পেয়ে পুলিশ ফিরে আসেন। পরে বিকেলে ৩ টায় আবুল কালাম এর ছোট ভাই আবু কাসেম (৩৭) চান্দিনা হাসপাতাল থেকে বড় ভাই কে দেখে বাড়ি ফেরার পথে শিকারপুর মালি বাড়ির এলাকায় পিটিয়ে মারাত্মক ভাবে আহত করে। তার আত্মচিৎকারে এলাকা বাসী এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে কাবিলা ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাহেব আলী বলেন জিবির নামে চাঁদাবাজী এটি একটি হয়রানি। এ নিয়ে প্রতিনিয়ত অঘটন ঘটে থাকে। চাঁদা বাজী বন্ধ না করলে দুর্ঘটনা থেকে রেহাই পাবে না।প্রথমে বড় ভাই আবুল কালাম পিটিয়ে আহত করে। ছোট ভাই আবু কাসেম কে হাসপাতাল থেকে দেখে বাড়ি ফেরার পথে তাকেও পিটিয়ে হত্যা করে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করে। এ হত্যা কান্ডের ন্যায় বিচার দাবী করছে এলাকাবাসী।
এব্যপারে বুড়িচং থানার দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ জাবেদুল ইসলাম জানান খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে কুমেকে ময়না তদন্তের জন্য লাশ প্রেরণ করা হয়েছে।
বুড়িচং থানার ওসি মোঃ ইসমাইল
হোসেন বলেন, জিবি(চাঁদা) টাকা নিয়ে মারামারির ঘটনায় একজন নিহত হয়েছে।এ ঘটনার অভিয়োগে একজনকে আটক করা হয়েছে।থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

Daily Frontier News