Daily Frontier News
Daily Frontier News

কুমিল্লায় যুবলীগ নেতা জামাল হোসেন হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত গাড়ী, বোরকা ও ক্যানভাস স্যু-সহ ০৩ জন গ্রেফতার।

 

কুমিল্লা প্রতিনিধি৷।

 

গত শনিবার (৬ মে) রাত থেকে রোববার (৭ মে) পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা থেকে ৩ আসামীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলো আসামিদের বহন করা গাড়ি চালক কুমিল্লার তিতাস উপজেলার লালপুর গ্রামের সামছুল হকের ছেলে মো. সুমন হোসেন (২৭), একই উপজেলার জিয়ারকান্দি গ্রামের মৃত কালু মিয়ার ছেলে মো. রবি (৩৩) ও মৃত আসাদ মিয়ার ছেলে মো. শাহপরান (৩৪)।

সোমবার (৮ মে) দুপুরে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেসব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান।

গত ৩০ এপ্রিল রাতে কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানাধীন গৌরিপুর পশ্চিম বাজার সংলগ্ন মসজিদের সামনে তিতাস উপজেলার যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জামাল হোসেনকে বোরকা পরিহিত ৩ জন অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করে। ঘটনা পরবর্তীতে তাৎক্ষনিকভাবে পুলিশ সুপার, কুমিল্লা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আসামীদের সনাক্তকরন সহ দ্রুত গ্রেফতারের জন্য দিক-নিদের্শনা প্রদান করেন।
উক্ত নির্দেশনা মোতাবেক জেলা গোয়েন্দা শাখা, কুমিল্লা এবং দাউদকান্দি থানা পুলিশসহ অন্যান্য ইউনিট উক্ত হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আসামীদের সনাক্ত এবং ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটন পূর্বক আসামীদের গ্রেফতারের জন্য বিশেষ অভিযান শুরু করে। প্রাথমিক ভাবে ঘটনাস্থলের আশেপাশে থাকা সকল সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ পূর্বক বোরকা পড়া ০৩ জনকে সনাক্তের জন্য সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষন করা হয়। আসামীদের ঘটনাস্থলে প্রবেশ ও বাহিরের রাস্তা সনাক্ত করা হয়। গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ সহ সিসিটিভি ফুটেজ এবং তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গত ০৬/০৫/২০২৩খ্রিঃ তারিখ রাতে ঘটনায় জড়িত ০৩ বোরকা পরিধানকারী আসামী সহ অন্যান্য আসামীদের ঘটনাস্থলে যাবার আগে ও পালিয়ে যাবার সময় ব্যবহৃত একটি কালো হাইস গাড়ীর চালক আসামী মোঃ সুমন হোসেন (২৭) কে নারায়নগঞ্জ মদনপুর হতে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার পরবর্তী সময়ে আসামী ড্রাইভার সুমনকে জিজ্ঞাসাবাদ কালে তার প্রদত্ত তথ্যমতে ঘটনায় ব্যবহৃত আসামীর চালিত কালো হাইস গাড়ীটি গৌরিপুর হাট চান্দিনাস্থ তার ভাড়া বাসার পাশে খালি জায়গা হতে উদ্ধার পূর্বক জব্দ করা হয়। এছাড়াও আসামী ড্রাইভার সুমনের বাসা হতে তল্লাশী করে এবং তার দেখানো তথ্য মতে ঘটনার সময় বোরকা পরিহিত আসামীদের ব্যবহৃত ০২ জোড়া ক্যানভাস সু এবং ঘটনার সময় সুমনের পরিহিত একটি ট্রাউজার উদ্ধার করা হয়। অপর গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ শাহপরান (৩৪) এবং মোঃ রবি(৩৩)দ্বয়কে ডিএমপি ঢাকার মালিবাগ চৌধুরীপাড়া এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়। আসামী মোঃ শাহপরান (৩৪) ঘটনার সময়ে ঢাকায় অবস্থান করে ঘটনাস্থলে থাকা আসামীদের সাথে ঘটনার আগে ও পরে যোগাযোগ করে। তাদেরকে আত্মগোপনে থাকার বিষয়ে পরিকল্পনা ও সার্বিক সহযোগিতা করে। আসামী শাহ পরান আলোচ্য মামলার ৮নং এজাহার নামীয় আসামী অলি হাসানের ভায়রা ভাই হয়। তার সহযোগিতায় আসামীরা ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় আত্মগোপনে থাকে বলে জানা যায়। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ রবি(৩৩) এজাহারনামীয় ০৯নং আসামী কালা মনির এর ভাই। সে ঘটনার সময় ঘটনাস্থলে আশেপাশে অবস্থান করে শুটারদেরকে তথ্য দেওয়া ও পালাতে সাহায্য করে শাহ পরান এর সহযোগিতায় অন্যান্য আসামীদের সাথে আসামী রবিও (৩৩) ঢাকায় গিয়ে আত্মগোপনে থাকে। আসামী রবিকে জিজ্ঞাসাবাদে আসামীদের পলায়নের পথ সম্পর্কে ধারণা লাভ করে গৌরিপুর পশ্চিম বাজার জনৈক হাবিবুর রহমানের বিল্ডিংয়ের পাশে আম গাছের নীচ থেকে আসামীদের পরিহিত একটি কালো বোরকা ও হিজাব উদ্ধার করা হয়। জেলা পুলিশ কুমিল্লা কর্তৃক গ্রেফতারকৃত ০৩ জন আসামী যথাক্রমে ১। মোঃ রবি (৩৩), পিতা- মৃত কালু মিয়া, মাতা-নিহারা বেগম, গ্রাম- জিয়ারকান্দি, থানা-তিতাস, জেলা-কুমিল্লা, ২। মোঃ শাহ পরান (৩৪), পিতা- মৃত আসাদ মিয়া, মাতা-শিরিয়া বেগম, গ্রাম- জিয়ারকান্দি, থানা-তিতাস, জেলা-কুমিল্লা, ৩। সুমন হোসেন (২৭), পিতা-সামছুল হক, মাতা- রিনা বেগম, গ্রাম-লালপুর (পূর্ব পাড়া) পোঃ-মজিদপুর, থানা-তিতাস, জেলা-কুমিল্লা এবং র‍্যাব-১১ কর্তৃক গ্রেফতারকৃত ০৩ জন যথাক্রমে ৪। মোঃ ইসমাইল (৩৬), পিতা- খুরশিদ মিয়া, মাতা-আজমির বেগম, গ্রাম-জিয়ারকান্দি, থানা-তিতাস, জেলা-কুমিল্লা, ৫। মোঃ শাহীনুল ইসলাম ( সোহেল শিকদার) (৪০), পিতা-মোঃ আক্তার হোসেন শিকদার, মাতা-নুরুন্নাহার, গ্রাম-মনাইরকান্দি, থানা- তিতাস, জেলা-কুমিল্লা, ৬। শাহ আলম ( পা কাটা আলম) (৩৬), পিতা- মৃত বজলুর রহমান, মাতা-হোসনেয়ারা বেগম, গ্রাম-গোপচর, থানা-দাউদকান্দি মডেল, জেলা-কুমিল্লা সহ মোট ০৬ জন গ্রেফতারকৃত আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।
আসামীদের ব্যাপক পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদের নিমিত্তে ০৭ (সাত) দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। উল্লেখ্য যে আসামী রবি ও শাহ পরানের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে একটি করে মামলা বিচারাধীন আছে।

Daily Frontier News